আসুন শিশুদের সুন্দর আগামীর জন্য আমাদের বর্তমানকে উৎসর্গ করি -অ্যাডভোকেট মৃণাল কান্তি দাস এমপি

মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন:
মুন্সীগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মৃণাল কান্তি দাস এমপি, শিশুরা আমাদের ভবিষ্যৎ। আসুন, আমরা শিশুদের জন্য নিরাপদ, শান্তিপূর্ণ বাংলাদেশ গড়ে তুলি। আসুন, শিশুদের সুন্দর আগামীর জন্য আমাদের বর্তমানকে উৎসর্গ করি।

আজ শুক্রবার মুন্সীগঞ্জ জেলা কিন্ডারগার্টের এন্ড ট্রাস্ট এসোসিয়েশন আয়োজিত কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি। অনুষ্ঠানে উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মুফতি সরওয়ার হোসাইন, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মনসুর আহমেদ কালাম, অধ্যাপক মো. আবুল বাশার, মো. শাহজাহান গাজী, মো. আমিনুল ইসলাম আমির, সাংবাদিক মীর নাসির উদ্দিন উজ্জ্বল, মো. মকবুল হোসেন দেওয়ান।

অ্যাডভোকেট মৃণাল কান্তি দাস বলেন, উন্নত জাতি গঠনের মূলভিত্তি হলো শিশুরা। আজকের শিশুই আগামীর ভবিষ্যৎ। তাদেরকে দক্ষ মানবসম্পদ হিসেবে গড়ে তুলতে পারলেই উন্নত সমৃদ্ধ কল্যাণকর রাষ্ট্র বিনির্মাণ করা সম্ভব হবে।

তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বলেছিলেন, “সোনার বাংলা’ গড়তে হলে আমার ‘সোনার মানুষ’ চাই। নিরক্ষরতার অভিশাপ দূর করে প্রতিটি মানুষকে শিক্ষিত করতে না পারলে, সোনার মানুষ গড়া যাবে না।” জাতির পিতা উপলবদ্ধি করেছিলেন ‘শিক্ষার শেকড়’ প্রাথমিক শিক্ষা। তাই তিনি সবার জন্য এ স্তরের শিক্ষা বাধ্যতামুলক ও সার্বজনীন করে দেন। শিক্ষকদের জীবন-মান ও মর্যাদা বৃদ্ধির জন্য তাদের চাকুরী জাতীয়করণ করেন ।

তিনি বলেন, জাতির পিতা ছাত্রজীবন থেকেই দরিদ্র্য-অসহায় সহপাঠীদের সাহায্য করতেন। তাদেরকে আপন করে নিতেন। আমি চাই তোমরা জাতির পিতার আদর্শকে ধারণ করে সবসময়ই দরিদ্র, অসহায় ও প্রতিবন্ধী শিশুদের পাশে দাঁড়াবে। ছোটকাল থেকে তিনি মানুষকে ভালবাসতেন এবং মানুষের কল্যাণের স্বপ্ন দেখতেন বলে তিনি আমাদের জাতির পিতা হতে পেরেছেন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে আমরা পেয়েছি স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ।