জনগণের দোর গোড়ায় পৌঁছে দিন নাগরিক সুযোগ-সুবিধা – অ্যাডভোকেট মৃণাল কান্তি দাস এমপি

মুন্সীগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মৃণাল কান্তি দাস এমপি বলেছেন, সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের দায়িত্ব পালনে যত্ববান হতে হবে। জনগণের দোর গোড়ায় পৌঁছে দিতে হবে নাগরিক সুযোগ-সুবিধা।

মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলা পরিষদে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ অন্যান্য কর্মকর্তাদের সাথে মতবিনিময় সভায় এ কথা বলেন তিনি। এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুবাইত হায়াত শিপলু, সহকারী কমিশনার (ভূমি) শেখ মেজবাউল সাবেরিন, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর হোসেন, কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা হাবিবা নাসরিন, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. জাহাঙ্গীর আলম, প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার নাছিমা খানম, পরিবার-পরিকল্পনা কর্মকর্তা ছেরাজ আহম্মেদ, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা আলেয়া ফেরদৌসী, যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা অঞ্জলী সাহা প্রমুখ। এ সময় অ্যাডভোকেট মৃণাল কান্তি দাস এমপি উপজেলার সার্বিক উন্নয়ন কর্মসূচি, বন্যা পরবর্তী পুনর্বাসন কর্মসূচি, করোনা ভাইরাসের প্রকোপ নিয়ন্ত্রণ, সামাজিক সুরক্ষা ভাতা ও কৃষি প্রণোদনা ইত্যাদি বিভিন্ন সময় সম্পর্কে খোঁজ-খবর নেন এবং করণীয় সম্পর্কে বিস্তারিত আলাপ-আলোচনা করেন।

অ্যাডভোকেট মৃণাল কান্তি দাস বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুকন্যা জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ তার কাক্সিক্ষত লক্ষ্যে এগিয়ে যাচ্ছে। বাংলাদেশের মাটি ও মানুষের উন্নয়নে সরকারের গৃহীত কর্মসূচিসমূহের সফল বাস্তবায়ন নির্ভর করে মাঠ পর্যায়ের সরকারি কর্মকর্তাদের কার্যক্রমের উপর। সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের দায়িত্ব পালনে য্ত্নবান হতে হবে।

তিনি বলেন, প্রজাতন্ত্রের কর্মকর্তা হিসেবে প্রশাসনের দায়িত্বপ্রাপ্ত সকলে সাংবিধানিক কর্তব্য পালনে আন্তরিক হতে হবে। জনগণের দোর গোড়ায় পৌঁছে দিতে হবে নাগরিক সুযোগ-সুবিধা। কোনো প্রকার প্রভাব-প্রতিপত্তির নিকট মাথা নত না করে দুর্নীতি ও অনিয়মের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে।

তিনি বলেন, সমগ্র পৃথিবী জুড়ে বৈশি^ক মহামারি করোনা ভাইরাসের সেকেন্ড ওয়েভ শুরু হয়েছে। আক্রান্ত ও মৃত্যুতের সংখ্যা বৃদ্ধি পেতে শুরু করেছে। তাই সকলকে আরও সতর্ক থাকতে হবে। যথাযথ স্বাস্থ্য সুরক্ষা বিধি মেনে চলতে হবে। ব্যাপক জনসচেতনতা গড়ে তুলতে হবে।