বেঁচে থাকলে আবারও জীবনে বসন্ত আসবে সচেতন হোন- সুস্থ থাকুন – অ্যাড. মৃণাল কান্তি দাস এমপি’র আহ্বান

মুন্সীগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মৃণাল কান্তি দাস এমপি আজ এক বিবৃতিতে বলেছেন, বেঁচে থাকলে আবারও জীবনে বসন্ত আসবে। বছর ঘুরে আবারও পবিত্র ঈদ আসবে- ঈদের আনন্দে উদ্বেলিত হবে সমাজ। তাই সবার আগে প্রয়োজন জীবনের সুরক্ষা- জীবনের নিরাপত্তা। অতিমাত্রার ছোঁয়াছে ভাইরাস করোনার প্রকোপ থেকে বাঁচতে জনসমাগম এড়িয়ে চলুন। বাড়ি ফেরার নামে সড়কে জনারণ্য সৃষ্টি করবে না।

অ্যাডভোকেট মৃণাল কান্তি দাস বলেন, বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চরম সংকটে মানুষ। বিশ^ব্যাপী প্রতিদিনই বাড়ছে আক্রান্ত রোগী ও মৃত্যের সংখ্যা। বিশ্বের উন্নত রাষ্ট্রসমূহও হিমশিম খাচ্ছে করোনা সংকট মোকাবেলায়। আমাদের প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশেও করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়ছে।

তিনি বলেন, করোনা সংকট মোকাবেলায় সরকার ব্যাপক কর্মোদ্যোগ বাস্তবায়ন করে আসছে। সাধারণ মানুষের মধ্যে ব্যাপক হারে সংক্রমণ রোধে দীর্ঘ সাধারণ ছুটি চলমান রয়েছে। মানুষকে হোম কোয়ারেন্টাইন বা স্বেচ্ছা ঘরবন্দি থেকে ভাইরাসের প্রকোপ থেকে মুক্ত রাখার জন্য ব্যাপকভাবে সচেতনতা সৃষ্টি করা হয়েছে। তারপরও কিছু মানুষ অবহেলা প্রকাশ ঘরে অযথা বাইরে বের হচ্ছেন এবং পবিত্র ঈদের কেনাকাটা ও ঈদে বাড়ি ফেরার নামে পথ-ঘাট ও বাজারে জনসমাগম সৃষ্টি করছেন। যা অত্যন্ত উদ্বেগের বিষয়।

তিনি বলেন, পবিত্র রমজান মাস সৌহার্দ্য, ভ্রাতৃত্ব ও কল্যাণকর আচার-আচরণ অনুশীলনের মাস। অথচ এই পবিত্র রোমজান মাসে এবং সৌহার্দ্য ও ভ্রাতৃত্বের আহ্বানে উদ্ভাসিত পবিত্র ঈদের চেতনাকে উপেক্ষা করে অনেকেই করোনা সংক্রমণের ঝুঁকিকর পরিবেশ সৃষ্টি করছে।

তিনি বলেন, আসুন, প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসের কারণে সৃষ্ট সংকট মোকাবেলায় পবিত্র রমজানের শিক্ষায় সকলে ঐক্যবদ্ধ হয়ে স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলার সামাজিক দূর্গ গড়ে তুলি। ভ্রাতিত্ব ও সৌহার্দ্যরে ঈদে সমাজের সকল শ্রেণী পেশার মানুষের পাশে দাঁড়াই। সকলে মিলে ঘরে ঘরে অবস্থান করে পরিবার-পরিজন নিয়ে ঈদের আনন্দ উপভোগ করি।