গজারিয়ায় সন্ত্রাসী রাসেল বাহিনীর হামলায় আহত হয়ে চিকিৎসাধীন একজনের মৃত্যু

গজারিয়া (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার ইমামপুর ইউনিয়নের রসুলপুর গ্রামে বুধবার ভোরে সন্ত্রাসী রাসেল বাহিনীর হামলায় আহত একজনের চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয়েছে।
নিহতের নাম বি.আলম (৩৫)। সে সড়ক পরিবহন শ্রমিকলীগের গজারিয়া উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।
গজারিয়া থানা সূত্রে জানা গেছে ঢাকা মেডিকেল কলেজে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ (বৃহস্পতিবার) সন্ধ্যা সাড়ে ছয় টায় মারা যান তিনি।
ইমামপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মনসুর আহমেদ খান জিন্নাহ জানান, গতকাল সন্ত্রাসী রাসেল বাহিনীর হামলায় ১৫ জন আহত হয়। তার মধ্যে গুরুতর আহত তিনজনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজে ভর্তি করা হয়েছিল। গুরুতর আহত তিনজনের মধ্যে বি.আলম (৩৫)-এর দুই পায়ের রগ কাটা ও মাথায়, শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাত ছিল। এছাড়া জামসেদ (৫০)-এর চার হাত-পা ও হাসান (৩০)-এর একটি হাত ভেঙ্গে দিয়েছিল সন্ত্রাসীরা। এদিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টার সময় মারা যায় বি.আলম।
ভুক্তভোগীদের অভিযোগ,বুধবারের সহিংসতার ঘটনায় গজারিয়া থানায় তারা তিনটি পৃথক অভিযোগ দিলেও সেগুলো মামলা হিসেবে লিপিবদ্ধ হয়নি পাশাপাশি এ ঘটনায় কোন আসামি আটক করতে পারেনি পুলিশ।
ঠিকাদার মিলন মিয়াজী জানান, রাসেল এলাকার চিহ্নিত একজন সন্ত্রাসী। তার বিরুদ্ধে অস্ত্র, মাদক,ডাকাতিসহ প্রায় ডজনখানেক মামলা রয়েছে। রাসেলের বিরাট সন্ত্রাসী বাহিনী আছে যারা গজারিয়ায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছে। গজারিয়ার আইনÑশৃঙ্খলা রক্ষার স্বার্থে তাকে আইনের আওতায় আনা জরুরী।
গজারিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ইকবাল হোসেন জানিয়েছেন আসামী আটকে তাদের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে এ ঘটনায় সংশ্লিষ্ট কাউকেই ছাড় দেওয়া হবে না।