চাঁদাবাজির সংবাদ প্রকাশের পর দিশেহারা ভবেরচর হাইওয়ের ফাঁড়ির ইনচার্জ কবির

গজারিয়া প্রতিনিধি:
মুন্সীগঞ্জ গজারিয়া উপজেলার ভবেরচর হাইওয়ে ফাঁড়ির ইনাচর্জ মো: কবির হোসেন খান গজারিযা হাইওয়ে রোডে চাঁদাবাজির সংবাদ প্রকাশের পর দিশেহারা হয়ে পড়েছেন। সে এখন সিএনজি ও ব্যাটারি চালিত রিক্সা ড্রাইভারদের দিয়ে মানব বন্ধন করিয়ে তাদের মাধ্যমে প্রতিবাদ করেছেন। শুধুমাত্র চাঁদাবাজির অভিযোগকে মিথ্যা প্রমাণিত করার জন্যই এই আয়োজন।

সে হাইওয়ে রোডে চাঁদাবাজি করেন না। চাঁদাবাজি যদি নাই করেন তবে তিনি কেন কয়েকজন সাংবাদিকদের টাকা দিয়ে গাড়ির ড্রাইভারদের দিয়ে মানব বন্ধন ক্রিয়েট করলেন? খোজ নিয়ে যতটুকু জানা গেছে চাঁদাবাজীর সংবাদ প্রকাশের পূর্বে যে সকল গাড়ি হাইওয়ে ফাঁড়িতে নিয়ে মামলা দেয়া হয়েছে সেই সকল ড্রাইভারদের দিয়ে মানব বন্ধন করা হয়েছে। গাড়িগুলো আটকিয়ে ২ মাসের ৩ মাসের মামলা দেয়া হয়েছে। তাদেরকে জিম্মি করে এই মানব বন্ধন করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

চাঁদাবাজীর সংবাদ প্রকাশের পূর্বে যে সকল সিএনজি ও ব্যাটারি চালিত রিক্সা আটক করে মামলা দিয়ে ডাম্পিং করে। সেই গাড়ির ড্রাইভারদের দিয়ে মানব বন্ধন করিয়ে কি বুঝাতে চেয়েছেন সেটাই এখন প্রশ্ন। ঐ সকল ড্রাইভারদের হয়রানী করে যাচ্ছে প্রতিনিয়ত। এখনো তার বাড়ির ও অফিসের কাজ করে দিয়ে ৭টি সিএনজি এখনো চালিয়ে যাচ্ছে ড্রাইভারগং।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, চাঁদাবাজীর সংবাদের পরে কোন গাড়ি সে ধরেনি। তার পরেও কেন এই মানব বন্ধন।